বাকেরগঞ্জে সরকারি ও সংখ্যালঘুর জমি জালিয়াতির মাধ্যমে দখলের অভিযোগ কাউন্সিলর প্রার্থী শামিম বিশ্বাসের বিরুদ্ধে

0
104

ডেস্ক রিপোর্টঃ
বাকেরগঞ্জ পৌরসভার ৯ নং ওয়ার্ডের আকব্বর আলী বিশ্বাস এর বড় পুত্র শামিম বিশ্বাস এর বিরুদ্ধে হিন্দুদের জমি ও সরকারির জমি দখলের অভিযোগ উঠেছে। নিজের সকল অপকর্ম ধামাচাপা দিতে কাউন্সিলর নির্বাচনে মেতে উঠেছে। একজন অপকর্মকারীরা থেকে সমাজ কতটুকু উপকৃত হতে পারে সাধারণ মানুষদের মাঝে নানা রকম প্রশ্ন দেখা দিয়েছে। বাকেরগঞ্জ ভূমি অফিস বরিশাল জেলা প্রশাসক বরাবর ২১৭৪ নং স্মারকে জেল ৪৬ ভরপাশা মৌজা আর এস এ ২৩৮২ ও ২২৮৪ নং খতিয়ানের এস এ ১৫৭৩,১৫৭৪,১৫৭৫,১৫৭৭,নং দাগে ০,৮৪ শতাংশ জমি রাষ্ট্রীয় অধিগ্রহণ ১৯৫০ সালের ৯২ (ক) ধারায় পরিত্যক্ত জমি জনস্বার্থে খাজ করিয়া উন্নয়ন প্রকল্পে ব্যবহারের ব্যবস্থা করার আবেদন করে। আবেদনের পরিপেক্ষিতে উপজেলা ভূমি অফিসের সার্ভেয়ার আখতারুজ্জামান রেকর্ডপত্র ও সরেজমিন তদন্ত করেন। তদন্তে বেরিয়ে আসে জে এল ৪৬ নং ভরপাশা মৌজার বি এস ১/১ নং খতিয়ানে ২৭১৬ নং দাগে সিনেমাহল লেখা থাকলেও বাস্তবে সিনেমাহল ২৭১৩ নং দাগে ২৪ শতাংশ জমিতে অবস্থিত যাহা ১/১ নং খতিয়ানের বাংলাদেশ সরকার এর পক্ষে বরিশাল জেলা প্রশাসক এর নামে রেকর্ড রয়েছে।

পত্রে বাকেরগঞ্জ সহকারী ভুমি অফিসার প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা নেয়ার জন্য জেলা প্রশাসকের নিকট অনুরোধ করেন। এদিকে অভিযোগ রয়েছে ভরপাশা ৪৬ মৌজার ১০৯৭ খতিয়ানের ৩০৮০ দাগ ও ৩০৮১ দাগ থেকে শামিম বিশ্বাস এর নামে ১৯৬৩ সালে খেপুপাড়া রেজিস্ট্রি অফিস থেকে ৩২ শতাংশ জমি ক্রয় দেখিয়ে জাল জালিয়াতি করে চিন্তা হরন, বীরেন্দ্রনাথ ও প্রমীলাবালা তিন হিন্দু ব্যক্তির সম্পত্তি তার দখলে রেখেছেন। অথচ শামিম বিশ্বাস এর জন্ম ১৯৬১ সালে।

এ ব্যাপারে শামিম বিশ্বাস জানান, তিনি সিনেমা হল ক্রয় করেছেন বরিশালের বিএনপি নেতা ওবায়দুল হক চাঁন এর থেকে। হিন্দুদের জমি ক্রয়ের বিষয় আমি কিছুই জানি না । আমার বাবা তা জমি ক্রয় করেছেন।

জাল দলিল আখ্যা দিয়ে দাতা পক্ষের লোকজন জানিয়েছেন দলিলটি সম্পর্ন জালিয়াতুর মাধ্যমে করা হয়েছে। যখন দলিল হয়েছে তখন শামিম বিশ্বাসের বয়স মাত্র দুই বছর অথচ ঐ দলিলে তার দুই চাচাও ক্রয় মূলে মালিক কিন্তু তার বাবার নাম না দিয়ে দুই বছরের শিশুর নামে জমি ক্রয়ের ঘটনায় জালিয়াতি প্রমান পাওয়া । কারন এই জমি ক্রয়ের মূল দলিল তার কাছে নেই।

সরকারি জমির ব্যাপারে বাকেরগঞ্জের সহকারী ভুমি মোঃ তরিকুল ইসলামের দুটি নম্বরে কল করা হলে তার নম্বর বন্ধ পাওয়া যাওয়ায় তার বক্তব্য গ্রহন করা সম্ভব হয়নি।

ভুমি অফিস সুত্র জানায়, সরকারি জমি উদ্ধারের জন্য বাকেরগঞ্জের সহকারী কমিশনার চলতি বছরের ১১ অক্টোবর বরিশাল জেলা প্রশাসক বরাবরে ২১৭৪ নং স্মারকে পত্র দিয়ে প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা গ্রহনের অনুরোধ জানিয়েছেন।

বাকেরগঞ্জের স্থানীয় লোকজন শামিম বিশ্বাসের বিরুদ্ধে ব্যবস্থা গ্রহনের দাবী জানিয়েছেন।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here