কোভিড ভ্যাকসিন বাধ্যতামূলক নয়, জানালেন বাইডেন

0
73

ডিজিটাল ডেস্ক: করোনাভাইরাসের ভ্যাকসিন নেওয়ার জন্য মার্কিনিদের উপর জোরজার করা হবে না বলে শুক্রবার জানিয়েছেন প্রেসিডেন্ট-নির্বাচিত জো বাইডেন। কোভিড ভ্যাকসিনের কার্যকরিতা ও সুরক্ষা সম্পর্কে মার্কিন নাগরিকদের আশ্বস্ত করতে তিনি নিজে জনসমক্ষে টিকা নিতে আগ্রহ প্রকাশ করলেও কখনোই চাপ সৃষ্টি করতে চান না। স্পষ্টতই জানিয়েছেন তিনি।

ডেলাওয়্যারের উইলমিংটনে সংবাদমাধ্যমের মুখোমুখি হয়ে জো বাইডেন বলেন, ‘আমি মনে করি না কোভিড ভ্যাকসিন বাধ্যতামূলক হওয়া উচিত। এটা বাধ্যতামূলক করতে হবে, সে দাবিও আমি করব না।’ ফেসমাস্ক নিয়েও বাইডেনের বক্তব্য পরিষ্কার, আমি মনে করি না দেশজুড়ে সর্বত্র মাস্ক পরা বাধ্যতামূলক করার প্রয়োজন রয়েছে। কোভিড ভ্যাকসিন কি আমেরিকায় বাধ্যতামূলক হতে চলেছে? সাংবাদিকদের এই প্রশ্নের উত্তরে এ ভাবেই জবাব দিয়েছেন মার্কিন প্রেসিডেন্ট পদে সদ্য নির্বাচিত বাইডেন।

আগামী সপ্তাহ থেকেই রাশিয়ায় গণহারে টিকাদান শুরু হয়ে যাবে। ব্রিটেনেও স্বাস্থ্যকর্মী ও সংকটজনক রোগীদের কোভিড টিকা দেওয়া শুরু হবে আগামী সপ্তাহেই। ধারণা, আমেরিকাও কয়েক দিনের মধ্যে টিকাদান কর্মসূচি শুরু করবে। কোভিড টিকা নিয়ে জনমনে একটা ভীতি তৈরি হয়েছে। মার্কিনিদের একটা বড় অংশই ভ্যাকসিনের পার্শ্বপ্রতিক্রিয়ার ভয় পাচ্ছেন। এমত অবস্থায় লোকজনের মনে যে অমূলক আশঙ্কা তৈরি হয়েছে, তা দূর করতে তিনি প্রাক্তন মার্কিন প্রেসিডেন্ট বারাক ওবামা, জর্জ ডব্লিউ বুশ এবং বিল ক্লিনটন এগিয়ে এসেছেন। বাইডেনের পাশাপাশি তাঁরাও জানিয়েছেন জনমনে ভীতি দূর করতে তাঁরা ক্যামেরার সামনে কোভিড ভ্যাকসিন নেবেন।

মার্কিন প্রেসিডেন্ট হিসেবে ২০ জানুয়ারি আনুষ্ঠানিক ভাবে দায়িত্বভার গ্রহণ করবেন বাইডেন। এদিন ভ্যাকসিন
নিয়ে বাইডেন আরও জানিয়েছেন, নিখরচায় টিকা দেওয়া হবে। এর জন্য একনয়া কানাকড়িও কাউকে ব্যয় করতে হবে না। সর্বত্র যাতে ভ্যাকসিন পাওয়া যায়, তা-ও তিনি নিশ্চিত করবেন। ভ্যাকসিন নেওয়ার পর যদি কোনওরকম জটিলতা দেখা যায়, সে ক্ষেত্রেও দুশ্চিন্তার কিছু নেই বলে তিনি আশ্বস্ত করেছেন।

মার্কিন প্রেসিডেন্ট নির্বাচনে বিজয়ী হওয়ার পর প্রথম আনুষ্ঠানিক ভাষণে দেশবাসীকে ১০০ দিন মাস্ক পরতে বলেছিলেন বাইডেন। তাঁর বক্তব্য ছিল, আমি বলছি বলে নয়, এর পিছনে কোনও রাজনৈতিক অভিসন্ধি খুঁজবেন না। কাউকে শাস্তি দেওয়াও উদ্দেশ্য নয়। নিজেদের সুরক্ষার জন্য পরুন।

বাইডেন যা বলেছেন তার মোদ্দা কথায়, লোকজন যদি ধৈর্য ধরে ১০০ দিন মাস্ক পরেন, তার মধ্যে কোভিড টিকাদানও শুরু হয়ে যায়, চারপাশের এই মৃত্যুমিছিল আর থাকবে না। লোকজন চাক্ষুষ করবেন কাতারে কাতারে লোক আর অসুস্থ হচ্ছেন না। একজন দেশপ্রেমিক হিসেবে এটা কর্তব্য বলেই তিনি মনে করেন। তাই ‘বাধ্যতামূলক’ এমন কোনও ফরমান তিনি জারি করতে চান না।

এই সময় ডিজিটাল এখন টেলিগ্রামেও। সাবস্ক্রাইব করুন, থাকুন সবসময় আপডেটেড। জাস্ট এখানে ক্লিক করুন।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here