সম্পূরক শিক্ষাবৃত্তির দাবিতে জবির ১৯ ছাত্রনেতার বিবৃতি

9

জবি প্রতিনিধিঃ করোনা ভাইরাস পরিস্থিতিতে সৃষ্ট জগন্নাথ বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষার্থীদের মেসভাড়া ও শিক্ষাব্যয় সংক্রান্ত সংকট নিরসনে বিশ্ববিদ্যালয় প্রশাসনের আন্তরিক উদ্যোগ ও সম্পূরক শিক্ষাবৃত্তির দাবি করেছেন শিক্ষার্থীরা। বুধবার বিশ্ববিদ্যালয়ের ক্রিয়াশীল ছাত্র সংগঠনসহ, সাংস্কৃতিক ও সামাজিক সংগঠনের ১৯ জন শীর্ষ নেতৃবৃন্দ এক যুক্ত বিবৃতিতে এই দাবি জানান।

বিবৃতিতে তারা বলেন, জগন্নাথ বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষার্থীদের চলমান সবচেয়ে মানবিক সংকট বাড়িভাড়া সংক্রান্ত বিষয়। টিউশন বা কোচিং ক্লাস করিয়ে যারা ঢাকায় জীবিকা নির্বাহ করতো বর্তমান পরিস্থিতিতে তাদের জীবনধারণ বিপর্যস্ত হয়ে পড়েছে। ইতোমধ্যে মেস মালিকদের সাথে শিক্ষার্থীদের ভাড়া নিয়ে বিরোধ তৈরী হয়েছে। এর মূল কারণ বর্তমান পরিস্থিতিতে অধিকাংশ শিক্ষার্থীদের মেসভাড়া পরিশোধের আর্থিক সক্ষমতা নেই। আমরা মনে করি, চলমান বাড়ি ভাড়া সংক্রান্ত সমস্যা সমাধানে বিশ্ববিদ্যালয় প্রশাসনকে গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা রাখতে হবে। শিক্ষার্থীদের গড় মেসভাড়া ১৭০০-২৫০০ টাকা। এর মধ্যে প্রতিমাসে ১৫০০ টাকাও যদি আর্থিক সাহায্য পাওয়া যেতো, এই সংকট অনেকটাই উৎরে ফেলা যেতো। বিবৃতিতে প্রত্যেককে আগামী অন্তত ৬ মাস ১৫০০ টাকা করে সম্পূরক শিক্ষাবৃত্তি দেয়ার দাবী জানান তারা।

তারা আরো বলেন, এখানে শিক্ষার্থীদের পেছনে মাথাপিছু ব্যয় অনেক কম। আমরা বিশ্ববিদ্যালয় প্রশাসনের কাছে জোর দাবি জানাই, শিক্ষার্থীদের সংকট নিরসনে সম্পূরক অর্থ সহায়তা বিষয়ে দ্রুত উদ্যোগ নিতে হবে। পহেলা বৈশাখ ও মুজিব বর্ষের উদ্বৃত্ত অর্থ ও আসন্ন বাজেটে সম্পূরক অর্থ সহায়তা খাতে টাকা বরাদ্দ নিতে হবে।

এ সময় শিক্ষার্থীদের পক্ষে বিবৃতি দেন-
ফাইয়াজ হোসেন, সভাপতি, জগন্নাথ বিশ্ববিদ্যালয় সাংস্কৃতিক কেন্দ্র; মো. মেহেদী হাসান রাব্বি, সভাপতি, জগন্নাথ বিশ্ববিদ্যালয় চলচ্চিত্র সংসদ; আশিকুর রহমান, সভাপতি, জগন্নাথ বিশ্ববিদ্যালয় ফটোগ্রাফিক সোসাইটি;
কেএম মুত্তাকী, সভাপতি, বাংলাদেশ ছাত্র ইউনিয়ন জগন্নাথ বিশ্ববিদ্যালয় সংসদ;
নাঈম রাজ, সভাপতি, মুক্তমঞ্চ পরিষদ জগন্নাথ বিশ্ববিদ্যালয়; আরাফাত আমান, সহ-সভাপতি, মুক্তমঞ্চ পরিষদ জগন্নাথ বিশ্ববিদ্যালয়; মাসফিকুল হাসান টনি, আহ্বায়ক, জগন্নাথ বিশ্ববিদ্যালয় রঙ্গভূমি; তৌফিক মেসবাহ, আহ্বায়ক, গ্রীন ফাইটিং মুভমেন্ট জগন্নাথ বিশ্ববিদ্যালয়; সাঈদ মাহাদী সেকেন্দার, সাধারণ সম্পাদক, জগন্নাথ বিশ্ববিদ্যালয় সাংস্কৃতিক কেন্দ্র; নোমান হাসান, সাধারণ সম্পাদক, জগন্নাথ বিশ্ববিদ্যালয় আবৃত্তি সংসদ; শ্রেয়শী সরকার, সাধারণ সম্পাদক, বাংলাদেশ উদীচী শিল্পীগোষ্ঠী জগন্নাথ বিশ্ববিদ্যালয় শাখা; খায়রুল হাসান জাহিন, সাধারণ সম্পাদক, বাংলাদেশ ছাত্র ইউনিয়ন জগন্নাথ বিশ্ববিদ্যালয় সংসদ; আবু বকর খান, সাধারণ সম্পাদক, বাংলাদেশ ছাত্র অধিকার পরিষদ জগন্নাথ বিশ্ববিদ্যালয় শাখা; অনিমেষ রায়, সাধারণ সম্পাদক, সমাজতান্ত্রিক ছাত্র ফ্রন্ট জগন্নাথ বিশ্ববিদ্যালয় শাখা; তানজিম সাকিব, সাধারণ সম্পাদক, সমাজতান্ত্রিক ছাত্র ফ্রন্ট জগন্নাথ বিশ্ববিদ্যালয় শাখা; মাহমুদুল হাসান, যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক, বাংলাদেশ ছাত্র অধিকার পরিষদ জগন্নাথ বিশ্ববিদ্যালয় শাখা;
তৌসিব মাহমুদ সোহান, সংগঠক, সাত দফা আন্দোলন; নাহিদ ফারজানা মীম, সংগঠক, বাড়িভাড়া সংকট নিরসন চাই, জবি এবং ফাহাদ জামান, সংগঠক, বাড়িভাড়া সংকট নিরসন চাই, জবি।