মানুষের হাতে টাকা এবং প্রতি ঘরে খাবার’সরকারকে নিশ্চিত করতে হবে

বাংলাদেশের কমিউনিস্ট পার্টি (সিপিবি)’র কেন্দ্রীয় কমিটির সম্পাদক জলি তালুকদার বলেছেন, চলমান মহামারী পরিস্থিতিতে একদিকে কৃষক ধানের লাভজনক দাম পাচ্ছে না, অন্যদিকে শ্রমিকের বেতন কেটে নেয়া হচ্ছে। তিনি বলেন, এই মহাবিপর্যয়কালে নিম্ন আয়ের মানুষের হাতে অর্থ না থাকা এবং এখন পর্যন্ত উপযুক্ত পরিবার চিহ্নিত করে প্রতিটি ঘরে সরকারি উদ্যোগে খাদ্য পৌছে দেয়ার ব্যবস্থা গড়ে তুলতে ব্যর্থতা আমাদের ভয়ংকর অবস্থার দিকে নিয়ে যাচ্ছে। তিনি অবিলম্বে ‘মানুষের হাতে টাকা এবং প্রতি ঘরে খাবার’ নিশ্চিত করতে সরকারের প্রতি দাবি জানান। নেত্রকোনার মোহনগঞ্জ ও মদন উপজেলায় আজ ১৩ মে ২০২০, বুধবার অনুষ্ঠিত দুটি পৃথক বিক্ষোভ কর্মসূচিতে অংশগ্রহন করে তিনি একথা বলেন।

সরকারের কাছে দাবি জানিয়ে জলি তালুকদার বলেন, প্রতিটি ইউনিয়নে সরকারি ক্রয় কেন্দ্র চালু করে খোদ কৃষকের কাছ থেকে ১০৪০টাকা দরে ধান কিনতে হবে। সারা দেশে নিম্ন আয়ের মানুষের জন্য রেশন কার্ড চালু এবং ত্রান চুরি ও লুটপাট বন্ধ করতে হবে। তিনি নেত্রকোনা জেলায় একটি পিসিআর ল্যাব স্থাপন এবং করোনা সংক্রমণ পরীক্ষা বৃদ্ধির দাবি জানান।

সিপিবি নেতা আব্দুল মোমেনের এর সভাপতিত্বে বেলা ১১টায় মোহনগঞ্জ খাদ্য গুদামের সামনে অনুষ্ঠিত সমাবেশে আরো বক্তব্য রাখেন পার্থ প্রতিম সরকার, সাইফুল ইসলাম, ঐষর্য্য আফরিন ঋতু প্রমূখ। বিকেল ৩টায় সিপিবি নেতা আবু হান্নান এর সভাপতিত্বে মদনের কেন্দুয়া সড়কে অনুষ্ঠিত সমাবেশে বক্তব্য রাখেন, এমদাদুল হক, আমির খসরু, আলী আকবর, বিজয় প্রমুখ।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here